শ্যামনগরে তরুণদের উদ্যোগে গ্রামে গ্রামে লকডাউন

রনজিৎ বর্মন শ্যামনগর, সাতক্ষীরা: করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বাদঘাটা গ্রামের তরুণরা সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের দায়িত্ব নিজেদের কাঁধেই নিয়েছেন। গত ৭ এপ্রিল থেকে স্বেচ্চাশ্রমের ভিত্তিতে তরুণরা নিজ গ্রামে নজরদারি করছেন। ফলে কেউ জরুরি প্রয়োজন ছাড়া গ্রামের ভেতর প্রবেশ এবং বাইরে যেতে পারছেন না।

বাদঘাটা গ্রামের লকডাউনের উদ্যোক্তা গাজী ইমরান জানান, করোনার সংক্রমণ এড়াতে এমন উদ্যোগ। গ্রামের প্রবেশমুখে জীবাণুনাশক স্প্রে এবং সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

পরদিন (৮ এপ্রিল) উপজেলার গোপালপুর গ্রামের তরুণরাও লকডাউন করেন। গোপালপুর গ্রামের মারুফ হোসেন মিলন জানান, বাদঘাটা ও গোপালপুর গ্রাম পাশাপাশি । বাদঘাটা গ্রাম লকডাউনের কারণে তাদের গ্রামে বহিরাগতদের যাতায়াত বেড়ে যায়। ফলে তারাও এমন সিন্ধান্ত নিয়েছেন।

৯ এপ্রিল উপজেলার নকিপুর উপজেলার তরুণরাও লকডাউন শুরু করেন। আব্দুল হালিম বলেন, গ্রামবাসীদের করোনা মুক্ত রাখতে ২৪ ঘন্টা পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। একই দিনে কাঁচড়াহাটি গ্রামের মুখে তরুণদের কড়াকড়ি। সেখানে লকডাউন তদারকরি করছিলেন অনাথ মন্ডল এবং উৎপল মন্ডল। তারা জানান, সারাদেশে করোনা আক্রান্ত বেড়ে যাওয়ায় ছোট গ্রামটিকে সংক্রমণ মুক্ত রাখতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ ছাড়া শ্যামনগর উপজেলার প্রধান সড়ক তদারকি করছে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি’র (সিপিপি) সদস্যবৃন্দরা সিপিপি সদস্য নিপুণ বলেন, উপজেলার প্রধান সড়কে অপ্রয়োজনে কেউ ঘোরাফেরা করলে তাকে বুঝিয়ে বাড়িতে পাঠানো হচ্ছে।

এ ভাবে উপজেলায় প্রতিদিন লকডাউন গ্রামের সংখ্যা বাড়ছে। এ ছাড়া সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে স্থানীয় প্রশাসন এবং সেনাবাহিনী কঠোরভাবে নজরদারি রাখছে।

করোনাভাইরাস সর্বশেষ আপডেট: ১৪ এপ্রিল

বাংলাদেশ: ১,০১২, মৃত্যু: ৪৬, সুস্থ্য: ৪২।

World: Coronavirus Cases:1,930,272 Deaths: 119,815 Recovered: 453,316

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত আরও খবর:

করোনাভাইরাস: রক্তের প্লাজমায় চিকিৎসা

দেহে কী ভাবে ঢোকে? কোন পথে চালায় আক্রমণ?

করোনাভাইরাস কী ভাবে ছড়াচ্ছে? লক্ষণ ও চিকিৎসা কী?

করােনার তথ্য জানাতে বাড়ানো হয়েছে হটলাইন নম্বর

Related Posts