স্বল্প খরচে সেরিব্রাল পালসির চিকিৎসা দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট: বাংলাদেশে জন্ম নেওয়া ২২ শতাংশ শিশু অক্সিজেনের অভাবসহ নানা সমস্যায় ভুগছেন। এদের মধ্যে প্রায় আড়াই লাখ শিশু সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

শনিবার দুপুরে ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ‘সেরিব্রাল পালসির সফল সার্জিক্যাল চিকিৎসা’ শীর্ষক সেমিনার এমন তথ্য জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।  

ফটো: কাশেম হারুণ

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শিশুর অভিবাবককে সতর্ক থাকতে হবে, রোগের উপসর্গ দেখা দিলে চিকিৎসার আওতায় নিয়ে আসতে হবে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমাদের দেশের দরিদ্রতা, অশিক্ষা ও নারীর প্রতি অবহেলা -এই তিন কারণে সেরিব্রাল পালসির হার বেড়েছে।

তিনি বলেন, পুষ্টিহীনতা ও বাচ্চা হওয়ার সময় পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পাওয়া -এ দুটি সমস্যার কারণে এ রোগটি হয়েও যেতে পারে। তাই আমাদের প্রথম কাজ হবে এটি প্রতিরোধ করা। যদি রোগটি হয়ে যায় তাহলে দরকার সার্জিক্যাল অপারেশন। এ অপারেশন রোগটি ভালো হয়। এ চিকিৎসা খুবই ব্যয়বহুল। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অপারেশনে তিন থেকে চার লাখ টাকা নেয়। আমরা এক লাখ টাকায় এ চিকিৎসা দিচ্ছি।

অপারেশন পদ্ধতির উদ্ভাবক অধ্যাপক ডা. ফরিদুল ইসলাম

বাংলাদেশে উদ্ভাবিত অপারেশন পদ্ধতিতে অধ্যাপক ডা. ফরিদুল ইসলাম গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে গত পহেলা নভেম্বর ১৩ বছর বয়সী সুমন নামের এক শিশুর খুলি কেটে সফল অপারেশন সম্পূর্ণ করেন।

Related Posts