মুসলিম হয়েও সিঁদুর পরে সংসদে নুসরাত জাহান! দেওবন্দের ফতোয়া

সিঁদুর পরে লোকসভায় গিয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। মুসলিম হয়েও নুসরাতের এধরণের কাণ্ডে ক্ষুদ্ধ দেশটির মুসলিম মুসলিম সম্প্রদায়। দারুল উলুম দেওবন্দ ফতোয়াও জারি করেছে ।

তূলমূল সাংসদের বিষয়টি নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে লুফে নিয়েছে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। নুসরাতেরি এমন কর্মকাণ্ডকে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার কথা বলছে বিজেপি নেতানেত্রীরা। পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট আসন থেকে তৃণমূলের প্রার্থী বিজয়ী হন। তবে তৃণমূল পুরো পরিস্থিতি নিয়ে সর্তক রয়েছে।

নুসরাত টুইটারে জবাবে লিখেছেন, আমি ঐক্যবদ্ধ ভারতের প্রতিনিধি। তা জাতপাত ও ধর্মের বাইরে। সব ধর্মের প্রতিই আমি শ্রদ্ধাশীল। কিন্তু আমি এখনও মুসলিম। প্রতিটি ধর্মের মূল্যবান উপদেশ পালন করাই আসল বিশ্বাস।

নুসরাতে আসনের সাবেক তৃণমূল সাংসদ ইদ্রিস আলি গণমাধ্যমকে বলেছেন, এরকম ঘটনায় তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি না। বিষয়টি নিয়ে অনেকে তাঁর নিকট আপত্তি জানায়। তাঁর মতে, নুসরাতের বিয়ে এবং পরবর্তী জীবনযাপনে সমর্থকরা বিভ্রান্ত হচ্ছেন ।

উল্লেখ্য, জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান ইসলাম ধর্মের অনুসারী হলেও ভিন্ন ধর্মের নিখিলকে বিয়ে করেছেন। ২৫ জুন লোকসভায় নুসরাত  সংসদে শপথের সময় ‘নুসরত জাহান রুহি জৈন’ হিসাবে নাম পাঠ করেন। এ সময় সিঁথিতে সিঁদুর এবং গলায় মঙ্গলসূত্র পিরিহিত ছিল । আর এই ঘটনায় ক্ষুদ্ধ ভারতের মুসলিম নেতারা।  এরইমধ্যে উত্তরপ্রদেশের দেওবন্দ ফতোয়া জারি করেছে।

বিশ্বের সংবাদদেশের সংবাদ, আর রাজনীতি, অর্থনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিফিচারবিনোদন আর খেলাধুলার সর্বশেষ বাংলা সংবাদ পড়তে লাইক করুন প্রবাসী টিভি’র Facebook পেজ আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel.

Related Posts