স্ত্রীর ঘাতককে ক্ষমা করলেন ফরিদ আহমেদ

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় উগ্রবাদী সন্ত্রাসী হামলায় নিহত বাংলাদেশী হুসনা আহমেদের স্বামী ফরিদ আহমেদ বলেছেন, তিনি হত্যাকারীকে ক্ষমা করে দিয়েছেন।

ডেনস অ্যাভিনিউ মসজিদের একজন সেবক ফরিদ আহমেদ আরও বলেন, ‘আমার অসংখ্য বন্ধুর সাথে আমার প্রাণপ্রিয় স্ত্রীর হত্যাকারীকে আমি কোনো ঘৃণা পোষণ করছি না। আমি তাকে ভালোবাসি। আমি আমার স্ত্রীর ইচ্ছা অনুযায়ী তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি।’ আমার স্ত্রী সব সময় বলতেন, কারো প্রতি ঘৃণার মনোভাব দেখিও না, সবাইকে সব সময় ভালোবাসবে। তা হলেই পৃথিবীতে শান্তি আসবে।

উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে স্বামীর সাথে নিউজিল্যান্ড গমন করেন সিলেট বিশ্বনাথের হুসনা আহমেদ। ২০০৪ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় দুটি পাই হারান ফরিদ আহমেদ। সেই থেকে ফরিদ আহমেদ তার স্ত্রীর সহযোগীতায় হুইল চেয়ারে চলাফেরা করেন।

গত শুক্রবার স্বামীকে হুইল চেয়ারে করে মসজিদে নিয়ে যান হুসনা আহমেদ। পরে নিজেও নামাজের জন্য মহিলাদের জন্য নির্ধারিত কক্ষে চলে যান। ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘গুলির ঘটনা শুরু হতেই আমি হতভম্ব হয়ে দেখি সবাই চার দিকে ছোটাছুটি করছে। শুধু আমি হুইল চেয়ারে বসে মৃত্যুর প্রতীক্ষা করতে থাকি। সম্পাদনায়: এমএইছ চৌধুরী, জুনাইদ।


Related Posts