বৃক্ষপ্রেমী প্রজন্ম তৈরিতে অবদান রাখবে আঞ্চলিক ট্রি অলিম্পিয়াড: পার্থ সারথি

রনজিৎ বর্মন, ( শ্যামনগর ) সাতক্ষীরা: উপকূলীয় এলাকার নবীণ শিক্ষার্থীদের বৃক্ষ ও পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে সুন্দরবন স্টুডেন্ট সলিডারিটি টিম, উপকূলীয় শিক্ষা ও বৈচিত্র্য উন্নয়ন সংস্থা এবং বারসিকের পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয়েছে ‘আঞ্চলিক ট্রি-অলিম্পিয়াড-২০১৯’।

ট্রি অলিম্পিয়াড উপলক্ষে বারসিক সাতক্ষীরার শ্যামনগর কার্যালয়ে রবিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বারসিক শ্যামনগরের প্রধান কর্মকর্তা পার্থ সারথি পাল বলেন, শ্যামনগর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের ২৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নিয়ে ট্রি-অলিম্পিয়াডের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়েছে। প্রতিযোগিতার মাধ্যমে প্রতিটি বিদ্যালয় হতে তিনজন নির্বাচিত হবে এবং নির্বাচিত সকলকে নিয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে মূল অলিম্পিয়াড আয়োজন করা হবে।

এলাকাভিত্তিক ট্রি অলিম্পিয়াড আয়োজনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানীর অন্যতম উৎস হলো বৃক্ষ। জ্বালানি ও পরিবেশ সুরক্ষায় সচেতনতা মূলক এই কর্মসূচিটি অনেক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে। ট্রি অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীগণ নিজেরা বৃক্ষ এবং পরিবেশ সুরক্ষায় অবদান রাখবে এবং বৃক্ষপ্রেমী প্রজন্ম তৈরীতে এটি বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। তিনি আরও বলেন, তাদের জানা মতে এটি বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে প্রথম ট্রি-অলিম্পিয়াড। উপজেলা প্রশাসন এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার করবেন বলে জানান তিনি।

Related Posts