আন্দ্রে মর্গেনের ‘হৃদয় দ্য টি বয়’

ছবির মাধ্যমে সংগ্রামী মানুষের জীবনের গল্প তুলে ধরেন এই ইতালীয় নির্মাতা আন্দ্রে মর্গেন। তাঁর পরিচালনায় পাঁচটি ছবি নির্মিত হয়েছে। প্রযোজনা করেছেন আরও ১৫টি চলচ্চিত্র। বাংলাদেশের এক চা বালকের জীবনের গল্প নিয়ে ’হৃদয় দি টি বয়’ নির্মাণ করেন। কথা বলতে গিয়েছিলেন সানজাদুল ইসলাম সাফা

২০১৭ সালের শুরুতে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমা বিষয়ক কর্মশালায় অংশ নিতে বাংলাদেশে আসেন। ঢাকার নানা রাস্তায় শুটিংয়ে বের হতেন। কিন্তু তাঁর চোখে পড়ে শিশুরা স্কুলে যাওয়ার পরিবর্তে ফুটপাতে নানা কাজে ব্যস্ত। যা ইতালির বাস্তবতার একবারে উল্টো। বিষয়টি আন্দ্রেকে ভীষণ নাড়া দেয়। অসংখ্য শিশুর জীবন বাংলাদেশে কতটা কঠিন তা ছবিতেই সবাইকে জানানোর সিদ্ধান্ত নিলেন।

চলচ্চিত্র উৎসবে হৃদয় নামের এক ছেলে সাথে পরিচয় হয়েছিল। সিনেমাটি ওই শিশুশ্রমিক হৃদয়কে নিয়েই। ছবিতে হৃদয় জীবনের তাগিদে একটি কম্পানিতে প্রতিদিন চা কফি বানাতো। আন্দ্রে তাঁর সিনেমায় হৃদয়ের পরিবারের অবস্থাও তুলে ধরেন। যা ছিল ইতালির প্রেক্ষাপটে তাঁর কাছে একবারে বিস্ময়কর। তিনি জানান, ছবিটির মাধ্যমে শিশু শ্রমিক হৃদয়ের জীবন সবার মাঝে তুলে ধরেন। 

নতুন পরিবেশে কাজের বাধা প্রসঙ্গে জানান, ভাষা জানতেন না। সেটাই প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তাছাড়া ইতালিতে দক্ষ সহকর্মীদের নিয়ে কাজ করতেন।

তবে, যাতায়াত, ভাষান্তর ও শুটিং আয়োজনে চলচ্চিত্র উৎসবের কর্মীদের সহযোগিতায় বাধা দূর করতে পেরেছিলেন। সেসময় সিনেওয়ার্কশপে পরিচয় হওয়া বন্ধুদের সহযোগিতা পান।

সে বছর মার্চে ক্যামব্রিজে স্পেশাল ইভেন্টের সিনেমাটি প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হয়। গল্পে-স্বল্পে আন্দ্রে জানান, ক্যামব্রিজে বিশ্বদ্যিালয়ের চলচ্চিত্র বিভাগে ছাত্রদের বাংলাদেশের শিশু শ্রমের অবস্থা সম্পর্কে জানতে ছবিটি খুবই ভালো একটা সুযোগ করে দেয়।

প্রবাসী টিভির ইউটিউব চ্যানেলে যোগ দিতে এখানে ক্লিক করুন।

বিনোদন বিভাগের সুপারহিট:

Related Posts