আমি নেমেছি আপনাদের বলে

মোঃ শফিকুর রহমান, বান্দরবান: আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বান্দরবান সদরে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী একেএম জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে বান্দরবান প্রেসক্লাব সম্মেলন কক্ষে জেলার ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের কাছ থেকে মতামত গ্রহণ করেন তিনি। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী একেএম জাহাঙ্গীর বলেন, সব দল, মত এবং সর্বমহলের আদর, স্নেহ আর ভালোবাসা নিয়ে আজ এতদূর এসেছি। আগামী দিনের বৈতরণী পার হতে আপনাদের কোন বিকল্প নেই। কারণ বুলেটের চেয়ে ব্যালটের শক্তি বেশি। আর সেই শক্তি যদি কারো পাশে থাকে সফলতা অর্জন সম্ভব। নেতৃত্ব দিতে গিয়ে আদর্শচ্যুত কখনো হয়নি। ১৫ আগস্টের হুলিয়া জারির সময়ও পালিয়ে যায়নি। জনগণের পাশে ছিলাম, আগামীতেও থাকবো। জনসম্পৃক্ততা থাকার করনে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর আমাকে বান্দরবান সদরের মতো গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় প্রার্থী করেছেন। ইনশাল্লাহ সাংবাদিকরা পাশে থাকলে জনগণের ভালোবাসায় নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করে প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে পারবো। দীর্ঘ পেশাজীবনের সহকর্মী সাংবাদিকদদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, আমি নেমেছি আপনাদের বলে। আপনাদের সমালোচনা, পরামর্শ নিয়ে আমার মন্দটুকু শোধরানোর চেষ্টা করবো।

এসময় সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বাদশা মিয়া মাস্টার, বর্তমান সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম সুমন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, প্রথম আলো প্রতিনিধি বুদ্ধ্যজ্যোতি চাকমা, ইত্তেফাক প্রতিনিধি মিলন চক্রবর্তী, এনটিভি প্রতিনিধি আলাদ্দিন শাহরিয়ার, বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ হাকিম, আবুল বশার ছিদ্দিকী, আবু মুছা, ইনকিলাব প্রতিনিধি শাদাত উল্লাহ, জনকন্ঠ প্রতিনিধি এস বাসু দাশ, চ্যানেল ২৪ প্রতিনিধি ইয়াছিনুল হাকিমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

প্রসঙ্গত, একেএম জাহাঙ্গীর ১৯৮৩ সাল থেকে প্রিন্টিং মিডিয়ায় সাংবাদিকতা ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ায় ২৮ বছর যাবৎ সাংবাদিকতায় জড়িত। বর্তমানে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি বান্দরবান ইউনিট, কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির, ইসলামী শিক্ষা কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদকসহ অন্তত তিন ডজন প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন। রাজনৈতিক জীবনে ১৯৮৪ সালে এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে কারাবরণ করেন একেএম জাহাঙ্গীর।

Related Posts