তিন দিনেও চৌহালী শহর রক্ষা বাঁধ মেরামত শুরু হয়নি

টিংকু আহমেদ, (বেলকুচি), সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জে যমুনার ভয়াবহ ভাঙনে চৌহালী শহর রক্ষা বাঁধের ১৬৩ মিটার ধসে গেছে। বাঁধ ধসের দিন থেকে ৩ দিন পার হলেও এখনো মেরামত কাজ শুরু হয়নি। ফলে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ভাঙন আতঙ্ক বিরাজ করছে। এজন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডকে (পাউবো) দুষছেন স্থানীয়রা।

পাউবো ও স্থানীয় সূত্রে জানায়, সিরাজগঞ্জের চৌহালী ও টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলাকে যমুনার করালগ্রাস থেকে রক্ষায় এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংকের অর্থায়নে ১০৯ কোটি টাকা ব্যয়ে চৌহালী শহর রক্ষা বাঁধ নির্মান করা হয়। বাঁধটি নির্মানের ফলে চৌহালী ও নাগরপুরের বিশাল এলাকা যমুনার ভাঙনের আশঙ্কা মুক্ত ছিল। কিন্তু শুস্ক মৌসুমে যমুনা নদীতে ভয়াবহ ভাঙনের ফলে সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) দুপুরের দিকে বাঁধের উত্তরে আটাপাড়া নামক স্থানে ১৬৩ মিটার ধসে যায়। ধসের ফলে বাঁধের সিসি ব্লক ও বালি ভর্তি জিওব্যাগ নদী গর্ভে চলে যায়। এদিকে বাঁধ ধসের ৩দিন পার হলেও শুরু হয়নি মেরামত কাজ। এ কারনে এলাকাবাসির মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

স্থানীরা অভিযোগ করেছেন, পাউবো’র গাফিলতির কারনেই বাঁধের ধসে যাওয়া অংশের মেরামত কাজ শুরুতে বিলম্ব করা হচ্ছে। তারা আরও জানান, যদি এটি দ্রুত মেরামত করা না হয়, আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ভয়াবহ ভাঙনের কবলে পড়বে বহু ঘরবাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং চিকিৎসা কেন্দ্র।

চৌহালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহা. আবু তাহির বলেন, উর্ধ্বতন মহলকে শহর রক্ষা বাঁধ মেরামতে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য জানানো হয়েছে।

ধসে যাওয়া স্থান পরিদর্শন করে বাঁধের তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম জানান, বৃষ্টি ও ঢাকায় নির্বাচনের কারণে কিছুটা বাঁধ মেরামতে বিলম্ব হয়েছে। তবে জিও ব্যাগ ফেলে অতি শীঘ্রই মেরামত কাজ শুরু করা হবে। আতঙ্কিত হবার কিছু নেই।

Related Posts