ছাত্রলীগ নেতার হাত-পা ভেঙ্গে দেয়ার প্রতিবাদে ঝাড়ু মিছিল

সুফি সান্টু, নাটোর: নাটোরের সিংড়ায় আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিকের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেওয়ার কারণে ছাত্রলীগ নেতার হাত-পা ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগে উঠেছে। অভিযোগে বিদ্রোহী প্রার্থীকে দায়ী করে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিচারের দাবিতে ঝাড়ু মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে শফিক সমর্থকেরা।

বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে শফিকুল ইসলাম শফিক সমর্থকেরা সিংড়া পৌর এলাকার প্রেট্রোবাংলা থেকে শত শত নারী পুরুষ ঝাড়ু হাতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি সিংড়া পৌর এলাকার বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ শেষে সিংড়া বাসস্ট্যান্ডে এক সমাবেশে মিলিত হয়। পরে সেখানে সমাবেশে বক্তব্য দেন, নির্যাতিত ছাত্রলীগ নেতার বাবা ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আফজাল সরকার, সিংড়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম কামরান এবং সিংড়া পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক। এসময় বক্তারা বলেন, বিএনপি থেকে অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড আওয়ামীলীগ কর্মী আদেশ আলী দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির জন্য বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হয়েছেন। তার সমর্থকদের হামলায় ছাত্রলীগ কর্মী গুরুতর আহত হয়ে রাজশাহী হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। বক্তারা এঘটনার বিচার ও আদেশ আলীকে দল থেকে বহিস্কারের দাবি করেন।

উল্লেখ্য সিংড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার বিকেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী আদেশ আলীর কর্মী পলক এর নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জনের একটি দল লোহার রড ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা করে ছাত্রলীগ নেতা মো. কামরুল সরকারের ওপর। হামলাকারীরা তার বাম হাত ও পা ভেঙে দেয়। পরে ছাত্রলীগ নেতা কামরুল সরকারকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ রাশেদুল ইসলাম।

আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, বিএনপির রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর ঘনিষ্ঠ সহচর আদেশ আলী সদ্য আওয়ামীলীগে যোগদান করে আওয়ামীলীগকে বিভক্ত করা চেষ্টা করছে। আজ দলের জন্য নিবেদিত একজন ছাত্রলীগ কর্মীর ওপর এই হামলা করেছে তারা। এর তীব্র ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আদেশ আলীর মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, তিনি এই হামলার বিষয়ে কিছুই জানেন না। ব্যক্তিগত দ্বন্ধের কারণে এ হামলার ঘটনা ঘটতে পারে। বিষয়টি নিন্দনীয় এবং দুঃখজনক। এ বিষয়ে সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনা জানার পরে কয়েক দফা অভিযান চালিয়ে সিংড়ার চৌগ্রাম এলাকা থেকে পলককে আটক করা হয়েছে। তবে ছাত্রলীগ নেতা কামরুলের পক্ষ থেকে এখনো থানায় কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি।

Related Posts