হঠাৎ বিদ্রোহী ক্রিকেটাররা: ১১ দফা দাবি

ধর্মঘটের ডামাডোল বাংলাদেশের ক্রিকেট। হঠাৎ বিদ্রোহী হয়ে ক্রিকেটাররা ১১টি দাবি উত্থাপন করেছেন ক্রিকেটাররা। বিসিবিকে পরিস্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছে দাবি পূরণের নিশ্চয়তা না পেলে জাতীয় দল এবং প্রথম শ্রেনীর সব ক্রিকেটাররা কোন ধরনের ক্রিকেটে অংশ নেবেন না।

বিসিবি কার্যালয়ের সামনে ক্রিকেটাররা তাদের ১১ দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হচ্ছে-

খেলোয়াড়দের বেতন বাড়ানোসহ ঘরোয়া ক্রিকেটের টুর্নামেন্টের সংখ্যা বাড়ানো, চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়দের সংখ্যা বাড়ানো, বিসিবির গ্রাউন্সম্যান থেকে শুরু করে অন্যান্য বেতনভুক্ত কর্মীদের আর্থিক নিরাপত্তা বৃদ্ধির মতো দাবি।

১১ দফা দাবি:

১. ক্রিকেট এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) এর সভাপতি কে হবে, সাধারণ সম্পাদক কে হবে তা ক্রিকেটাররা নির্বাচনের মাধ্যমেই এটা ঠিক করবে।

২. ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে কোন ক্রিকেটার কোন দলে খেলবে। তাদের পারিশ্রমিক কেমন হবে-এসব বিষয় ক্রিকেটারদের হাতে ফিরিয়ে দিতে হবে।

৩. এবারের আসরের পর থেকে পূর্বের নিয়মে বিপিএল আয়োজন এবং দেশীয় ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বৃদ্ধি।

৪. প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের ম্যাচ ফি ১ লাখে উন্নীত করা এবং প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের বেতন ৫০% বৃদ্ধি । ১২ মাস কোচ, ট্রেনিং এর নিশ্চয়তা।

৫. প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে মানসম্মত বল ব্যবহার, দৈনিক ভাতা বাড়ানো, ক্রিকেটারদের যাতায়াতের প্লেন ভাড়া, হোটেলে জিম ও সুইমিংপুল এবং ক্রিকেটারদের বাস উন্নয়ন করার দাবি।

৬. কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ক্রিকেটারের সংখ্যা বাড়িয়ে ৩০ করা এবং একইসাথে চুক্তির আওতায় বেতন বৃদ্ধি করা।

৭. মাঠকর্মী, স্থানীয় কোচ, আম্পায়ার, ফিজিও ও ট্রেইনারদের সম্মানী বৃদ্ধি করা।

৮. প্রিমিয়ার লিগে আমরা মাত্র একটি ওয়ানডে লিগ খেলি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়ানডে লিগের সংখ্যা বাড়ানো উচিত। বিপিএলের আগেভাগে আরেকটি টি-টোয়েন্টি লিগ।

৯. ঘরোয়া ক্রিকেটের জন্য নির্ধারিত সময়সূচি।

১০. বিপিএল এবং প্রিমিয়ার ক্রিকেটে ক্লাবগুলো যেন ক্রিকেটারদের বকেয়া টাকা ঠিক মতো পরিশোধের উদ্যোগ।

১১. যেকোন ২টি বিদেশী ফ্র‍্যাঞ্চাইজি লীগ খেলার বিধিনিষেধ শিথিল করা।

প্রবাসী টিভির ইউটিউব চ্যানেলে যোগ দিতে এখানে ক্লিক করুন।

বিনোদন বিভাগের সুপারহিট:

Related Posts