আধাঁর মানিকে ইটভাটার কবলে কৃষি

লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের আধাঁর মানিক গ্রামে ৪ টি ইটভাটার কারনে ওই এলাকায় কৃষি উৎপাদনে মারাত্মক হ্রাস পাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে পরিবেশ অধিদপ্তর ও উপজেলা প্রশাসন বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরও কোন প্রতিকার পায়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, আধাঁর মানিক এলাকায় ফসলি জমির উপর নিয়ম-নীতি উপেক্ষা করে সম্প্রতি মঞ্জুমা ব্রিক্স, সাগর ব্রিক্স, রাজা মিয়া ব্রিক্স, হক ব্রিক্স গড়ে উঠে। এতে করে এলাকায় কৃষি জমির উপর প্রভাব পড়ে। প্রতিদিন ইট ভাটার কালো ধোঁয়ার কারনে এলাকার নারকেল, সুপারী, কাঠ গাছ, বিভিন্ন প্রজাতির কৃষি পন্য উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে।ইতিমধ্যে সুপারী ও নারকেলের উৎপাদন ও ধানচাষসহ বিভিন্ন পন্য উৎপাদন কমে গেছে। অনেক গাছ গাছালি -মুকুল লাল হয়ে এবং পুকুরে মাছ মরে যাচ্ছে।


ওই এলাকার আল মাহামুদ ইবনে হুছাইন অনুপম নামের এক ব্যক্তি জানান, “আধাঁর
মানিক গ্রামে আমার একটি মৎস্য খামার রয়েছে। ওই খামারে এক হাজার নারকেল গাছ, ৮ শত আম গাছ, দুই হাজার সুপারী, দুইশত কাঁঠাল গাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ গাছ আছে।কিন্তু খামারের আশে পাশে ৫ টি ইটভাটায় ইট পোড়ানোর কারনে নারকেল গাছ, সুপারী গাছসহ ওই এলাকার বিভিন্ন ফসলাদি মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রন্থ হচ্ছে।এমতাবস্থায় ওই এলাকার ইট ভাটা গুলো বিষাক্ত ধোঁয়ার কারনে পুরো এলাকার উৎপাদন ও গাছ পালা নষ্ট হয়ে বিরল ভূমিতে পরিণত হওয়ার আশংকা রয়েছে |”

এ বিষয়ে কথা বলতে সদর উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা মো: শাজাহান আলির সাথে শনিবার বিকেলে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার মতামত নেওয়া সম্ভব হয়নি।এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদপ্তর নোয়াখালী অঞ্চলের সহকারী পরিচালক মো: আব্দুল মালেক মিয়া জানান, “ অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনারস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। তদন্ত কালে একটি ইটভাটার কারণে আবেদনকারী অনুপম এর খামার ও গাছ পালার ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বলে প্রতিয়মান হয়। বাকি ভাটা গুলো তেমন ক্ষতিগ্রস্থ করছেনা বলে তিনি মনে করেন। বিষয়টি আরো খতিয়ে দেখবেন বলে জানান তিনি।”

Related Posts