লকহার্টে হট এয়ার বেলুন দুর্ঘটনা

দিনটি ৩০ জুলাই ২০১৬, শনিবার। যুক্তরাষ্ট্রে টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের লকহার্টে ঘটে দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় হট এয়ার বেলুন দুর্ঘটনা। যদিও কারণ এখনো জানা যায়নি। সেদিন একদল ভ্রমণকারী হট এয়ার বেলুনে চড়ে সূর্যোদয় দেখার রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা নিতে গিয়েছিলেন। তবে ওড়ার আনন্দের পরিবর্তে ঘটে নির্মম ঘটনা।

সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বেলুনটি আকাশে উড়ে। কিন্তু ২০ মিনিট পরই ঘটল বিপত্তি। আকাশে ওড়ার পর বেলুনটি বিদ্যুত্‍ তারে জড়িয়ে যায়। পরপরই ভারসাম্য হারায় এবং বেলুনের ঝুড়িতে আগুন লাগে। ধীরে ধীরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে বেলুনেও। পুরো বেলুন আগুনের একটি গোলার রূপ নিয়ে সজোরে মাটিতে আঘাত করে। এতেই বেলুন থাকা ১৬ জন সবাই মারা যান।

ধূমপানে চেহারায় আকর্ষণ কমে

বেলুননের চালক ছিলেন অ্যালফ্রেড নিকোল্স। এর আগে তার বিরুদ্ধে মদ খেয়ে বেলুন ওড়ানোর অভিযোগ রয়েছে। গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন। তাই দুর্ঘটনা দিন নিকোল্স মদ্যপান করে কিনা তা সন্দেহ করা হয়। তাছাড়া সচরাচর হট এয়ার বেলুনগুলোতে এধরণের দুর্ঘটনা সম্ভাবনা একেবারে থাকে না।

ঘুমে মৃত্যুর কারণ

বেদনাদায়ক ঘটনার পর সবচেয়ে বেশি আপ্লুত করেছে, তা হল অনেক উঁচুতে উঠে বেলুনে চড়া মানুষগুলোর অনেকে সেলফি তুলেন। আবার বেলুনে চড়ার আগেও ছবি তোলেন। সেসময় তারা সামাজিক গণমাধ্যমে শেয়ার করেন। কিন্তু একটু পরেই এমন ঘটনা তা তো বন্ধুরা কল্পনা করেনি।

বিশ্বের সংবাদদেশের সংবাদ, আর রাজনীতি, অর্থনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিফিচারবিনোদন আর খেলাধুলার সর্বশেষ বাংলা সংবাদ পড়তে লাইক করুন প্রবাসী টিভি’র Facebook পেজ আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel.

Related Posts