রাগে সর্বনাশ!!!

রাগ এক ধরণের মানসিক আবেগ। স্বাভাবিক পরিস্থিতে মানুষ রাগতে পারে। অনেক সময় রেগে গিয়ে আপনার পাশের মানুষদের তিরস্কার করলেও নেতিবাচক নয়। তবে এই আবেগকে নিয়ন্ত্রণে আনা জরুরি।
রাগ নিয়ন্ত্রণ

আর কোন ভাবেই রাগকে বশে আনতে ব্যর্থ হলে আপনার ব্যক্তিগত ও পেশা জীবনে মারাত্বক প্রভাব ফেলবে। রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হলেও বেশকিছু সহজ উপায়ে সুফল পেতে পারেন।

বিমান থেকে প্যারাসুটে পালিয়েছিলেন যে চোর

ধ্যান করুন

রাগ কমাতে ধ্যান খুবই কার্যকরী। এটির চর্চা করতে নিঃশ্বাসের প্রতি ভালোভাবে মনযোগ বাড়াতে হবে। ২০১৫ সালের মনস্তাত্ত্বিক বিষয়ের এক গবেষণায় দেখা যায়, নিয়মিত ধ্যান করলে রাগ নিয়ন্ত্রণের সাথে বিষণ্নতা হ্রাস পায়। এতে জীবন ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে উঠে। তাই রাগের উপর পুরো নিয়ন্ত্রণ আনতে ধ্যান সবচেয়ে কার্যকরী ওষুধ।

সামান্য ভুলে উড়োজাহাজ দুর্ঘটনা

দৃঢ় নিঃশ্বাস নিন

নিঃশ্বাসের চর্চার কারণে মানুষের রাগের ক্ষমতা আস্তে আস্তে কমে যেতে থাকবে। পাশাপাশি রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে ভূমিকা রাখে ও দেহে প্রশান্তি লাগবে। রাগ পুরো নিয়ন্ত্রণে আনা পর্যন্ত গভীর নিঃশ্বাসের চর্চা করুন।

স্ট্রেস বলের সাহায্য নিতে পারেন

রাগ নিয়ন্ত্রণে দ্রুত ফলা পেতে স্ট্রেস বল কাজে লাগাতে পারেন। এতে চাপের মাধ্যমে চিন্তাগুলোকে আপনি কমাতে পারেন। এরই সাথে পেশীকে সুবিধাজনক স্থানে নিতে পারেন। দীর্ঘক্ষণ ধরে স্ট্রেস বলে চাপের কারণে হাতে ব্যথার উপক্রম হতে পারে। এতে বুঝতে পারবেন, আপনার রাগ অনেকটাই হ্রাসের দিকে রয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি হয়ত ভুলে বসবেন যে কি কারণে রাগ করে ছিলেন।

সামান্য ভুলে উড়োজাহাজ দুর্ঘটনা

গণনা করুন

দশ পর্যন্ত গণনা করুন। প্রাচীনকাল থেকেই পদ্ধতিটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি আপনাকে ক্রোধ থেকে অনেকখানি মুক্তি এনে দেবে। এর ফলে আপনার দুর্ভাবনা এড়িয়ে ভালোভাবে চিন্তার সুযোগ পাবেন।

উত্তেজনা কমাতে হাঁটুন

আপনি ক্রোদ্ধ হলে, কারও সাথে কথা বলায় বিরতি দিন। একা একা হাঁটতে চেষ্টা করুন। এতে ধীরে ধীরে আপনার নেতিবাচক পরিস্থিতি কেটে যাবে।  সেই সাথে উত্তেজনার শিকল টেনে ধরে নিজেকে নিরাপদ রাখতে সফল হবেন।

প্রবাসী টিভির ইউটিউব চ্যানেলে যোগ দিতে এখানে ক্লিক করুন।

বিনোদন বিভাগের সুপারহিট:

Related Posts