যেভাবে গ্রেফতার হলেন আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি

সারাদিন জিজ্ঞাসাবাদের পর আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে করেছে পুলিশ। বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার সুষ্ঠু তদন্ত এবং প্রাথমিকভাবে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত রিফাতের স্ত্রী মিন্নিকে গ্রেফতারের সিদ্ধান্ত নেয় পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ৯টা বরগুনা জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মারুফ হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।
আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি

পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন জানান, এ পর্যন্ত ১৪ জন আসামি গ্রেফতার হয়েছেন। এদের ৪ জন এজাহারভুক্ত এবং ১০ জন সন্দেহভাজনকে গ্রেফতারের করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার জনকে রিমান্ড নেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যা মামলার আসল রহস্য উদঘাটন এবং সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে মামলার এক নম্বর সাক্ষী মিন্নিকে মঙ্গলবার সকালে ডাকা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর তথ্য বিশ্লেষণ করে প্রাথমিকভাবে মিন্নির যোগসূত্র পেলে সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, রিফাতের বাবা তার ছেলের হত্যার সাথে পুত্রবধূ আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জড়িত থাকার অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন করেন। এরপর পুলিশ তার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলার ১ নম্বর সাক্ষী মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকে।

বিশ্বের সংবাদদেশের সংবাদ, আর রাজনীতি, অর্থনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিফিচারবিনোদন আর খেলাধুলার সর্বশেষ বাংলা সংবাদ পড়তে লাইক করুন প্রবাসী টিভি’র Facebook পেজ আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel.

Related Posts